তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচটিতেও হেরে তিন দশকেরও অধিক সময় পর তিন ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশের (ধবলধোলাই) স্বাদ পেলো ভারত।

বিজ্ঞাপন

শেষ ম্যাচটিতে আগে ব্যাটিং করে লোকেশ রাহুলের শতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ভারত সংগ্রহ করে ২৯৬ রান। জবাবে ৫ উইকেট ও ১৭ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

সান্ত্বনার জয়ের খোঁজে মাউন্ট ম্যানগুনায়তে টস হেরে আগে ব্যাটিং করার আমন্ত্রণে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ভারত। দলীয় ৩২ রানের মধ্যে মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও বিরাট কোহলি। ৪০ রান করা পৃথ্বী শ বিদায় নেন দলীয় ৬২ রানে।

চতুর্থ উইকেটে রাহুলের সাথে ঠিক ১০০ রানের জুটি গড়ে মাঠ ছাড়েন শ্রেয়াশ আইয়ার। জেমস নিশামের শিকার হওয়ার আগে শ্রেয়াশ করে ৬৩ বলে ৬২ রান। পঞ্চম উইকেটে আরও একটি শতরানের জুটি দেখে ভারত। এবারে রাহুলের সাথে ১০৭ রানের জুটি গড়েন মনিশ পাণ্ডে। রাহুল আউট হলে ভেঙে যায় তাদের জুটি।

হামিশ বেনেটের শিকারে পরিণত হওয়ার আগে তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন রাহুল। ২ ছয় ও ৯ চারে ১১৩ বলে ১১২ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেন উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব পালন করতে শুরু করা এই ব্যাটসম্যান। পরের বলেই মনিশকেও তুলে নেন বেনেট। মনিশের ব্যাট থেকে আসে ৪৮ বলে ৪২ রান।

নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৯৬ রান। বেনেট শিকার করেন ৪টি উইকেট।

জবাবে ঝড়ো শুরু করেন হেনরি নিকোলস ও মার্টিন গাপটিল। নিকোলস কিছুটা ধীরে সুস্থে খেললেও গাপটিল ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন। তাদের উদ্বোধনীতে আসে ১০৬ রানে। ১৭তম ওভারে গাপটিল ৪৬ বলে ৬৬ রান করে আউট হলে ভেঙে যায় জুটি। তার ইনিংসে ছিল ৬টি চার ও ৪টি ছয়।

কেন উইলিয়ামস (২২), রস টেলর (১২) ও নিশাম (১৯) দ্রুতই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। তবে এক প্রান্ত আগলে ছিলেন নিকোলস। ১০৩ বলে ৮০ রানের ইনিংস খেলে শার্দুল ঠাকুরের শিকারে পরিণত হন তিনি।

টম লাথামকে সাথে নিয়ে ষষ্ঠ উইকেটে ৮০ রানের জুটি গড়েন কলিন ডি গ্রান্ডহোম। এই অলরাউন্ডার ২৮ বলে ৫৮ রানের অপরাজিত টর্নেডো ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের জয় নিশ্চিত করেন। লাথাম অপরাজিত ছিলে ৩২ রানে।

১৭ বল হাতে থাকতেই নিউজিল্যান্ডের জয় নিশ্চিত হয়। সিরিজের প্রথম দুইটি ম্যাচেও নিউজিল্যান্ড জিতেছিল। ফলে ৩-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই হলো ভারত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত ২৯৬/৭ (৫০ ওভার)
রাহুল ১১২, শ্রেয়াশ ৬২, মনিশ ৪২, পৃথ্বী ৪০;
বেনেট ৪/৬৪।

নিউজিল্যান্ড ৩০০/৫ (৪৭.১ ওভার)
নিকোলস ৮০, গাপটিল ৬৬, গ্রান্ডহোম ৫৮*, লাথাম ৩২;
চাহাল ৩/৪৭।

নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী।