বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থীবাহী একটি বাস। রাত দেড়টার দিকে কুষ্টিয়ার সদরের বিত্তিপাড়া এলাকায় বাসটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এতে গাড়িতে থাকা বিভাগের দুই শিক্ষক ও চালকসহ ৪০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, গত বুধবার ব্যবস্থাপনা বিভাগের এমবিএ ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা এগ্রি বিজনেস বিষয়ের ওপর রাজ মটরসের একটি (ভাড়া গাড়ি) গাড়িতে করে নওগাঁ জেলায় ফিল্ড ওয়ার্কে যান। বৃহস্পতিবার ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্য রওনা হন তারা। ক্যাম্পাসের ফেরার পথে বাসটি কুষ্টিয়া সদরের বিত্তিপাড়া এলাকায় পৌঁছার পর রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাককে পাশ কাটাতে যায়। এ সময় বিপরীত দিক থেকে অপর একটি গাড়ি আসতে দেখে চালক বাসটির দ্রুতগতি কমিয়ে নিতে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। পরে বাসটি রাস্তার পাশের ট্রাকে ধাক্কা দেওয়ার পর একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে দুমড়ে মুচড়ে যায়। রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকটিও পাশে খাদে পড়ে যায়। দুর্ঘটনায় গাড়িতে থাকা দুই শিক্ষকসহ ৪০ শিক্ষার্থী আহত হয়।

দুর্ঘটনার পরে খবর পেয়ে পুলিশ, বিজিবি এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে। তাদের মধ্যে ১২ জনকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতাল এবং ২৮ জনকে ক্যাম্পাসের চিকিৎসা কেন্দ্রে নেয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ জানান, খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। আহতদের কুষ্টিয়া সদর হাসপাতাল এবং ক্যাম্পাসের চিকিৎসা কেন্দ্রে নেয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের উপ-প্রধান মেডিকেল অফিসার ডা. পারভেজ হাসান সাংবাদিকদের জানান, ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক ড. ধনঞ্জয় কুমার ও মুর্শিদ আলমসহ ২৮জনকে আমরা চিকিৎসা দিয়েছি। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন একটু বেশি আঘাত পেয়েছেন। তবে সবাই আশঙ্কামুক্ত।