নগরবাসীর বিনোদনে রুচিশীল পার্ক নির্মাণের চেষ্টা করছে চসিক-মেয়র

12

২৪ ঘন্টা চট্টগ্রাম ডেস্ক : চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির বলেন, এই নগরে মানসম্মত পার্ক নেই বললেই চলে। তবে চট্টগ্রাম সিটির প্রতিটি ওয়ার্ডে পার্ক, উদ্যোন নির্মাণের পরিকল্পনা চসিকের রয়েছে। যেখানে খালি ও পরিত্যাক্ত জায়গা পাওয়া যাবে সেখানেই পার্ক নির্মান করবে চসিক।

সোমবার সকালে নগরীর কাজীর দেউড়ীস্থ চট্টগ্রাম শিশু পার্কের আধুনিকায়ন কাজের উদ্বোধনকালে মেয়র এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরো বলেন, একটি মানসম্মত পার্ক বা মাঠ সমগ্র এলাকাবাসীকে উপকৃত করে। শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশে পার্ক ও খেলার মাঠ অপরিসীম ভুমিকা রাখে। এতে সামাজিকীকরণ,শারীর র্চ্চার সুযোগ হয়।

এই প্রসঙ্গে সিটি মেয়র বলেন, নগরবাসীর বিনোদনের জন্য রুচিশীল পার্ক নির্মাণে আপ্রাণ প্রচেস্টা চলিয়ে যাচ্ছে চসিক। এই শিশু পার্কে যে রাইডগুলো বিদ্যামান, তা বর্তমানে সময়ের জন্য অচল। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে রাইডগুলোকে পরিবতর্ন, পরিমার্জন করে নতুনরুপে সাজানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

তারই আলোকে চায়না বিশেযজ্ঞ এবং তাদের সার্বিক দিক নিদেশনায় আধুনিক রাইড স্থাপন করতে যাচ্ছে সংশ্লিষ্টরা। এতে বর্তমান প্রজম্মের সন্তানরা তাদের ইচ্ছানুযায়ী আনন্দ উপভোগ করতে পারবে।

সকালে পার্ক প্রাঙ্গণে বেলুন উড়িয়ে কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, চসিক প্রধান নিবাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাসেম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, ভু-সম্পত্তি অফিসার মোহাম্মদ এখলাচ উদ্দিন আহমদ এবং শিশু পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান, শিশু পার্ক পরিচালক (প্রশাসন) মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব এম এনামুল হক চৌধুরী, প্রমুখ। পরে দেশ জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

চসিক সূত্রে জানা যায়, চায়না বিশেষজ্ঞ ও কারিগরি সহযোগিতায় এ শিশু পার্কের আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। এতে ব্যয় হচ্ছে ৫০ কোটি টাকা। এ পার্ককে আরো আকর্ষনীয় ও আধুনিকায়নের জন্য ৯-ডি স্যামুলেটরসহ বিভিন্ন রাইড স্থাপন করা হবে। এছাড়াও আরো থাকছে দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে ১টি ফুডকোর্ট ও ১টি এ্যাকুরিয়াম রেস্টুরেন্ট।