বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯
চট্টগ্রামের পক্ষে গতির ঝড় তুলবেন মুসা খান

42

আসন্ন বঙ্গবন্ধু বিপিএল টি-টোয়েন্টির জন্য আরও এক বিদেশি ক্রিকেটারকে দলে ভেড়াল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ব্যাটসম্যানের পর বোলিং বিভাগ শক্তিশালী করতে পাকিস্তানের তরুণ পেসারকে দলে নিয়েছে চট্টগ্রাম।

বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফট শেষ আরও আগেই। তবে ড্রাফটের বাইরে ক্রিকেটারদের নেওয়ার নিয়ম রয়েছে। আর ওই নিয়ম মেনেই ব্যাটসম্যানের পর এবার ড্রাফটের বাইরে থেকে খেলোয়াড় নিলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। বল হাতে গতি দিয়ে আলোচনায় এসেছেন পাকিস্তানের তরুণ পেসার মুসা খান। বল হাতে ঘণ্টায় ১৪০ এর বেশি গতির ঝড় তুলতে পারেন এ পাকিস্তানের পেসার।

আর তাতেই তাকে দলে নিয়েছে চট্টগ্রাম। মুসাকে দলে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নিজেদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কয়েকদিন আগেই ড্রাফটের বাইরে দলে নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের লেন্ডল সিমন্সকে। এর আগে প্লেয়ার্স ড্রাফটে দল না পাওয়া লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেনকে দলে নিয়েছে চট্টগ্রাম।

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও অভিষেক হয়েছে মুসা খানের। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পার্থে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয় এ বোলারের। তবে নিজের প্রথম ম্যাচে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। টি-টোয়েন্টির পর টেস্ট দলেও ডাক পেয়েছিলেন তিনি। তবে মূল একাদশে খেলা হয়নি তার। সবমিলিয়ে মোট ১০টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন মুসা। ১০ ম্যাচে উইকেট নিয়েছেন ১২টি।

মুসা, সিমন্স ছাড়াও এ দলে রয়েছেন ইমরুল কায়েস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, নাসির হোসেন, রুবের হোসেনের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের পাশাপাশি রয়েছেন নুরুল হাসান, পিনাক ঘোষদের মতো তরুণ ক্রিকেটাররাও।

একনজরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স স্কোয়াড

দেশি: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, এনামুল হক জুনিয়র, পিনাক ঘোষ, মুক্তার আলী, নাসুম আহমেদ, জুনায়েদ সিদ্দিকী, জুবায়ের হোসেন লিখন।

বিদেশি: ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), কেসরিক উইলিয়ামস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), রায়ান বার্ল (জিম্বাবুয়ে), ইমাদ ওয়াসিম (পাকিস্তান), লেন্ডল সিমন্স (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মুসা খান (পাকিস্তান)।